ajkervabna.com
শুক্রবার ১৮ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ডোকলামে নতুন টানেল বানাচ্ছে চীন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | ১০ নভেম্বর ২০২০ | ৩:৩৭ পূর্বাহ্ণ | 24 বার

ডোকলামে নতুন টানেল বানাচ্ছে চীন

আবারো সক্রিয় চীনা সেনা বাহিনী। সবার অগচরে ডোকালামে নতুন করে টানেল বানাচ্ছে তারা। একদিকে যেমন অরুণাচল প্রদেশ সীমান্তে ট্রেন লাইন তৈরিতে গতি আনছে চীন, তেমনই ডোকলামে নতুন করে টানেল তৈরি করা হচ্ছে বলে দাবি ভারতীয় গণমাধ্যমের। তবে নতুন উপগ্রহ চিত্রে যা দেখা যাচ্ছে তাতে সেই প্রমাণ মিলছে।

২০১৭ সালে জুন মাসে চীনা সেনাকে ভারত ভুটান ও চীন সংলগ্ন বিতর্কিত ভূখণ্ড ডোকলামে রাস্তা তৈরিতে বাধা দেয় ভারতীয় সেনা। সেখান থেকেই শুরু ডোকলাম সমস্যার। দুই দেশই সীমান্তে মোতায়েন করে তাদের সেনা।

আড়াই মাস পর বেইজিং ও নয়াদিল্লির মধ্যে কূটনৈতিক স্তরে বৈঠকের পর বের হয় এই সমাধানে আসে তারা। পরে চীন ডোকলাম ইস্যুকে ‘ক্লোসজ চ্যাপটার’ বলে জানায়। তবে তা যে ক্লোজড চ্যাপ্টার হয়নি, তা চীনই প্রমাণ করে দিচ্ছে।

এনডিটিভি সম্প্রতি যে উপগ্রহ চিত্র প্রকাশ করেছে, তাতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে একটি টানেল তৈরি করেছে চীন। অক্টোবর মাসের এই চিত্রটিতে পরিষ্কার ডোকলাম সীমান্তে যে রাস্তা তৈরি নিয়ে বিতর্ক হয়েছিল, সেই রাস্তা লাগোয়া একটি টানেল তৈরি করেছে চীন। এটি অল ওয়েদার টানেল, বিশেষত শীতকালে সেনাদের আশ্রয় নেওয়ার জন্য এটি তৈরি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

এই টানেলটি দৈর্ঘ্য ৫০০ মিটার। প্রাথমিকভাবে এতটা বড় না হলেও, সম্প্রতি এর আয়তন বাড়ানোর কাজ চলছে বলে জানা গেছে। সেনা বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন ডোকলাম সীমান্তে রাস্তা সেভাবে তৈরি না হলেও, শীতকালে সেনা মোতায়েন করতে ও টহলদারি চালানোর জন্য এই টানেল ব্যবহার করবে চীন। এভাবেই গোটা এলাকায় কর্তৃত্ব নিতে চাইছে বেইজিং।

শীতকালে এই এলাকা পুরোপুরি বরফে ঢেকে থাকে। তখন সেনাদের নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য এই টানেল সাহায্য করবে বলে সূত্রের খবর। এদিকে, আগস্ট মাসে ডোকলাম, নাকু লা এলাকায় চীনা সীমান্তে মোতায়েন করা হয় মিসাইল এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম বলে খবর মেলে। সূত্র : এনডিটিভি

Facebook Comments Box

বাংলাদেশ সময়: ৩:৩৭ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১০ নভেম্বর ২০২০

ajkervabna.com |

advertisement
advertisement
আর্কাইভ
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
advertisement

©- 2021 ajkervabna.com কর্তৃক সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত।